This site is best viewed using the updated version of Mozilla Firefox

সি.সি.এন.এ টিউটোরিয়ালসমূহ

সি.সি.এন.এ – ১ : Network Communication

নেটওয়ার্ক যোগাযোগ শুরু হয় একটি ছোট তথ্য বা ম্যাসেজ থেকে যা একজন প্রেরক পাঠায় কোন প্রাপকের নিকট। এবং এই প্রেরক ও প্রাপকের মাঝখানে থাকে একটি মিডিয়া যার মধ্য দিয়ে এই তথ্য আদান-প্রদান হয়ে থাকে। সুতরাং আমরা বলতে পারি, নেটওযার্কে যোগাযোগের তিনটি প্রধান উপাদান হলো প্রেরক, প্রাপক ও মিডিয়া বা মাধ্যম।......বিস্তারিত

সি.সি.এন.এ – ২ : Application Layer

Application Layer এ নেটওয়ার্ক যোগাযোগের সূচনা হয়। এবং Application Layer এর প্রটোকলসমূহ প্রেরক ও গ্রাহক হোষ্টের মধ্যে ডাটার আদান-প্রদান করে থাকে। TCP/IP মডেলের এই Application Layer কে আরো ভালোভাবে বুঝার জন্য OSI রেফারেন্স মডেলে এটিকে Application Layer, Presentation Layer ও Session Layer এই......বিস্তারিত

সি.সি.এন.এ – ৩ : Transport Layer

TCP/IP মডেলে Application Layer এর কাজ শেষ হলে ডাটা ঐ লেয়ার থেকে পরবর্তী Transport Layer এ যায়। Transport Layer ডাটাকে ভেঙ্গে সেগমেন্ট এ পরিণত করে এবং এর সাথে এমন একটি মেকানিজম যুক্ত করে যাতে গ্রাহক হোস্ট এই সেগমেন্টগুলোকে একত্রিত করে আবার ডাটাতে রূপান্তরিত করতে পারে। এছাড়াও......বিস্তারিত

সি.সি.এন.এ – ৪ : IP Addressing and Sub-netting

নেটওয়ার্কের প্রতিটি End Device এর একটি স্বতন্ত্র (ইউনিক) পরিচয় থাকতে হয়। TCP/IP এর Network Layer এ প্যাকেটসমূহকে একটি Source Address এবং একটি Destination Address দ্বারা চিহ্নিত করা হয়। IPv4 এর প্রতিটি Network Layer Packet এ একটি ৩২ বিটের Source Address ও একটি ৩২ বিটের Destination Address থাকে......বিস্তারিত

সি.সি.এন.এ – ৫ : Address Resolution Protocol (ARP)

ARP Table হলো এক ধরণের Mapping Table যার মধ্যে LAN এর বিভিন্ন ডিভাইসসমূহের IP-MAC এর কম্বিনেশন থাকে। এই ARP Table ডিভাইসসমূহের RAM এ জমা থাকে। IP-MAC কম্বিনেশন ব্যবহার করে সোর্স ডিভাইস যখন ডাটা পাঠায় তখন ডেষ্টিনেশন ডিভাইস সহজেই বুঝতে পারে যে ডাটাটি তার নিজের জন্য এসেছে। যে প্রক্রিয়ায় একটি ডিভাইস LAN এর অন্যান্য ডিভাইসসমূহের IP-MAC কম্বিনেশন......বিস্তারিত


আরো টিউটোরিয়াল আসছে শীঘ্রই.......